পাতা

সিটিজেন চার্টার

বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটউট

চিংড়ি গবেষণা কেন্দ্র, বাগেরহাট

 

সিটিজেন চার্টার

 

চিংড়ি গবেষণা কেন্দ্রের কর্মদায়িত্ব

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে বাগেরহাট জেলায় চিংড়ি গবেষণা কেন্দ্র স্থাপন শীর্ষক একটি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় বাগেরহাট জেলা শহর সংলগ্ন ভৈরব নদীর পার্শ্বে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সহ এই গবেষণা কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিগত ১৫ মার্চ২০১১ইং তারিখ চিংড়ি গবেষণা কেন্দ্রের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মাধ্যমে কেন্দ্রটির প্রশাসনিক ও গবেষণা কার্যক্রম শুরু হয়। চিংড়ির সার্বিক চাষ ব্যবস্থাপনা উন্নয়নকল্পে রোগ নিয়ন্ত্রণ ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা, FDA/EU রেগুলেশন অনুযায়ী চিংড়ির গুনগতমান নিয়ন্ত্রণ, চিংড়ির খাদ্য ও পুষ্টির গুনগতমান উন্নয়ন এবং উদ্ভুত সমস্যাদির নিরসনে যুগোপযোগী গবেষণা পরিচালনা ও প্রযুক্তি উদ্ভাবন করাই এ কেন্দ্রের প্রধান কম©দায়িত্ব।

 

গবেষণালব্ধ অর্জিত সাফল্য

 

উন্নত চিংড়ি চাষ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে ইনস্টিটিউটের চিংড়ি গবেষণা কেন্দ্র হতে পরিচালিত উল্লেখযোগ্য গবেষণা কার্যক্রম সমূহ নিম্নরূপ

§  বাগদা চিংড়িতে হোয়াইট স্পট ভাইরাস সংক্রমনের জন্য দায়ী নিয়ামকসমূহ সনাক্তকরণ এবং গবেষণাগারে এর উপস্থিত নিশ্চিতকরণ।

§  চিংড়ি/মাছ/শুটকীতে পুঞ্জীভূত ক্ষতিকর কীটনাশক, এন্টিবায়োটিক এর উপস্থিতি ও মাত্রা নির্ণয়।

§  বাগদা চিংড়ির নার্সারী খাদ্যের উন্নয়ন।

§  গলদা চিংড়ি ও মনোসেক্স তেলাপিয়া মাছের মিশ্রচাষ কলাকৌশল প্রযুক্তি উদ্ভাবন।

§  সূলভ মূল্যে বাগদা চিংড়ির উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ নার্সারী খাদ্য উদ্ভাবন।

§  প্রোবায়োটিক্স ব্যবহারে গলদা চিংড়ির বাঁচার হার নির্ণয় এবং উৎপাদন বৃদ্ধিকরণ।

§  বিদ্যমান চাষ পদ্ধতিতে চিংড়ি ঘেরের মাটি ও পানির পরিবেশ বান্ধব গুনাগুন নির্ণয়।

§  বাগেরহাট অঞ্চলে গৃহাঙ্গন গলদা চিংড়ি (ব্যাকইয়ার্ড) হ্যাচারি প্রযুক্তি সম্প্রসারণকরণ।

§  উপকূলীয় নদীতে চিংড়ি ও অন্যান্য মাছের পোনা ধরার জালসহ অন্যান্য সরঞ্জামাদি সনাক্তকরণ ও জীববৈচিত্রের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব নির্ণয়।

 

উল্লেখিত প্রযুক্তি বিষয়ে কারিগরি তথ্য/সেবা প্রদানসহ প্রযুক্তি বিষয়ক পুস্তিকা/ম্যানুয়েল ইত্যাদি কেন্দ্রের গ্রন্থাগার হতে সরবরাহ করা হয়ে থাকে।

 

চিংড়ি গবেষণা কেন্দ্রের কারিগরি সেবা কার্যক্রম

 

সেবার ধরণ

সময়কাল

মৎস্য/চিংড়ি রোগ নির্ণয় ও প্রতিকার বিষয়ে ক্ষতিগ্রস্থ চাষীদের নমুনা পরীক্ষা ও পরামর্শ সেবা প্রদান।

v  গবেষণাগারে মাছ/পানির নমুনা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে ১-৭ দিন।

v  মাঠ পর্যায়ে পরিদশ©নের ক্ষেত্রে পরিদশ©ন পরবর্তী ৭ দিন।

মৎস্য/চিংড়ির বিদ্যমান চাষ পদ্ধতিতে মাটি ও পানির পরিবেশ সহনশীল গুনাগুন ব্যবস্থাপনা বিষয়ে পরামর্শ প্রদান।

v  পানির নমুনা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে ১-৭ দিন।

মৎস্য/চিংড়ির খাদ্যনমুনা পরীক্ষা এবং খাদ্যের উন্নত ব্যবস্থাপনা বিষয়ে পরামর্শ প্রদান।

v  নমুনাপ্রাপ্তিরক্ষেত্রে ৩-২১ দিন।

চিংড়ি হ্যাচারী, চিংড়ি/মৎস্য খামার ডিজাইন ও ব্যবস্থাপনায় কারিগরি সহায়তা প্রদান।

v  সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবের আলোকে মাঠপর্যায় পরিদশ©নের ক্ষেত্রে ১৫-২১ দিন।

উদ্ভুত সমস্যা নিরসনে সরকারী/বেসরকারী জলাশয়, মৎস্য/চিংড়ি খামার পরিদর্শন ও পরামর্শ সেবা প্রদান।

v  নমুনা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে ১-৩ দিন।

v  মাঠ পর্যায়ে পরিদর্শণের ক্ষেত্রে পরিদর্শন পরবর্তী ৩-৭ দিন।

আপদকালীন (বন্যা, খরা বা অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগ) সময়ে মাছ/চিংড়ি চাষ/সংরক্ষণে পরামর্শ অথবা জলাশয়দূষণ/মৎস্য মড়ক প্রতিরোধে করণীয়।

v  বন্যা পূর্ববর্তী বা পরবর্তী সময়ে মাছ চাষ বিষয়ে করণীয় সার্বক্ষণিক পরামর্শ প্রদান।

v  জলাশয় দূষণ/মৎস্য মড়ক বিষয়ে তাৎক্ষণিক মাঠ পরিদর্শন ও করণীয় বিষয়ে পরামর্শ প্রদান।

 

যোগাযোগ

মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা

ফোন নং-০১৭১২-১০৩২৮১


Share with :

Facebook Twitter